প্রেম করে দ্বি-তীয় “বিয়ে” সাত মাসেই গেল প্রা’ণ

0
467
প্রেম করে দ্বি-তীয়
প্রেম করে দ্বি-তীয় "বিয়ে" সাত মাসেই গেল প্রা'ণ

প্রেম করে দ্বি-তীয় “বিয়ে” সাত মাসেই গেল প্রা’ণ

বিয়ের সাত মাসের মাথায় স্ত্রীকে খুনের অভিযোগ উঠেছে স্বামী মিম হোসেনের (৩০) বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার (০১ ডিসেম্বর) দিবাগত রাতে পাবনার সুজানগর পৌর সদরের মসজিদপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

 

প্রথম স্ত্রী ডিভো’র্স দিয়ে চলে যাওয়ার পর ‘প্রেম করে জাকিয়া সুলতানাকে (১৭) বিয়ে করে’ছিলেন মিম হোসেন। মিম হোসেন সুজান’গর পৌর ‘সদরের মসজিদপাড়া মহল্লা’ মন্তাজ আলীর ছেলে এবং জাকিয়া সুলতা’না সদর উপজেলার সাদুল্লাপুর ইউনিয়নের পাটোয়া ‘গ্রামের হাসান আলীর মেয়ে’। তিনি দুবলিয়া ফজিলাতুন্’নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ‘১০ম শ্রেণির ‘ছাত্রী ছিলেন।

 

জাকিয়া’ সুলতানার মা রাশিদা খাতুন বলেন, সাত মাস আগে মেয়ের স’ঙ্গে মিম হোসেনের বিয়ে হয়। তা’দের প্রেমের সম্পর্ক হওয়ায় পারিবারিকভাবে ‘বিয়ে দেয়া হয়। বিয়ের কয়েকদিন’পর জাকিয়া জানতে পারে স্বামী মাদকাসক্ত। এ’ নিয়ে তাদের মধ্যে দাম্পত্য কলহ শুরু হয়। এসব নিয়ে প্রতিবাদ করলে’ জাকিয়াকে মারধর ‘করতো মিম।

 

মঙ্গলবার দিবাগ’ত রাতের কোনো একসময় জাকিয়াকে ‘হত্যা করে মিম। জাকিয়াকে শ্বাসরোধে হত্যার পর তার মরদেহ ‘বসতঘরের ফ্যানের সঙ্গে ঝুলি’য়ে রাখা হয়।

স্থানীয়রা জা’নায়, জাকিয়াকে বিয়ের আগে আরেক’টি বিয়ে করেছিলেন মিম হোসেন। কিন্তু মি’ মাদকাসক্ত হওয়ায় তাকে ‘ডিভোর্স দিয়ে চলে যান স্ত্রী।’ পরে জা’কিয়াকে বিয়ে করেন মিম।

প্রেম করে দ্বি-তীয় "বিয়ে" সাত মাসেই গেল প্রা'ণ
প্রেম করে দ্বি-তীয় “বিয়ে” সাত মাসেই গেল প্রা’ণ

দুবলি’য়া ফজিলাতুন্নেছা ‘বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক আ’ব্দুল খালেক খাঁন বলেন, জাকিয়াকে হত্’যার ঘটনায় বিদ্যালয়ের শিক্ষ’ক-শিক্ষার্থীরা শোকাহত।’জাকিয়া হত্যায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নে’য়ার দাবি জানাই।

 

সুজানগ’র থানা পুলিশের ভারপ্’রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ‘মো. বদরুদ্দোজা বলেন, ‘য়নাতদন্তের জন্য মরদেহ পাবনা জেনা’রলে হাসপাতাল মর্গে পাঠানো ‘হয়েছে। প্রতিবেদন ‘পাওয়ার পর জানা যাবে কিভাবে তার মৃ’ত্যু হয়েছে। সে মোতাবেক আইনগত ব্যবস্থা ‘নেয়া হবে। ঘটনার পর থেকে অ’ভিযুক্ত স্বামী মিম হোসেন’পলাতক। তাকে গ্রেফতার ক’রা হবে।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here