মুনিয়ার ব্যাংক অ্যাকা’উন্টে কারা পাঠাত এতো টাকা

0
653
মুনিয়ার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে কারা পাঠাত এতো টাকা
মুনিয়ার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে কারা পাঠাত এতো টাকা

মুনিয়ার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে কারা পাঠাত এতো টাকা

রাজধানীর গুলশানের একটি’ ফ্ল্যাটে মোসারাত জাহান মুনিয়ার মৃত্যুর ছয় দিনের মাথায় নিহতের ভাই আশিকুর রহমান রবিবা’র হত্যা মামলা নেওয়ার জন্য আদালতে আবেদন করেছেন। তবে ওই আবেদন নিয়ে মুনিয়ার বোন নুসরাত জাহান নিজের ভিন্ন’ অবস্থানের কথা জানান।আবেদনে মুনিয়ার ভাই ‘আশিকুর রহমান হত্যা মামলার আসামি হিসেবে চট্টগ্রামে’র সরকার দলীয় সাংসদ ও হুইপপুত্র সামশুল হক চৌধুরীর ছেলে নাজমুল করিম চৌধুরী শারুনের নাম উল্লেখ করেছেন।

 

মুনিয়ার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে কারা পাঠাত এতো টাকা

এটিকে মামলা ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার ইঙ্গিত হিসেবে দেখছেন তার বোন নুসরাত জাহান। তিনি ব’লেন, প্ররোচনা মামলাটি প্রায়’ প্রমাণিত হওয়ার পথে। আমার ভাই আশিকুর রহমান প্ররোচনার মামলাটিকে ভিন্ন ‘খাতে নিতে নাজমুল করিমের বিরুদ্ধে মিথ্যা ‘খুনের মামলার অভিযোগ এনেছেন। প্রকৃতপক্ষে আশিকুর রহমান কিছুই জানেন না’। উনি কখনও কোনও দায়িত্ব পালন করেননি। মুনিয়ার অভিভাবক বলতে আমি আর আমার স্বামী। অভিভাবকের’ নাম করে অসৎ উদ্দেশে হঠাৎ কেন তিনি (আশিকুর ‘রহমান) এই মামলা করতে গেলেন তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন ‘নুসরাত।

 

 

নুসরাত আরও দাবি ক’রেন, আশিকুর রহমানের সঙ্গে অনেক আগে থেকেই তাদের দুই বোনের সম্পর্কের অব’নতি হয়েছে।’ তাদের একটি পারিবারিক মামলা আগে থেকে চলমান। এটা এখন সবার জানা। এদিকে গুলশানের যে বাসায় থাকতেন মোসারাত জাহান মুনিয়া সেই ফ্ল্যাটটি কে ভা’ড়া নিয়েছিলেন? কার তথ্য দেওয়া ছিল ভাড়াটিয়া ফর্মে? অনুসন্ধানে জানা গেছে’, গুলশান-২ নম্বরের ১২০ নম্বর সড়কের ওই ফ্ল্যাটটি ভাড়া নেওয়ার ভাড়াটিয়া ফর্মে তথ্য ছিল মুনিয়ার বড় বোন নুসরাত ও ‘তার স্বামীর। তাদের দুজনের জাতীয় পরিচয়পত্রের (এন’আইডি) ফটোকপি ওই ফর্মের সঙ্গে গেঁথে দেওয়া হয়েছিল।’ আগাম ভাড়াও পরিশোধ করেছিলেন তারা।

রাজধানীর গুলশানের একটি ফ্ল্যাটে মোসারাত জা’ন মুনিয়ার মৃত্যুর ছয় দিনের মাথায় নিহতের ভাই আশিকুর রহমান রবিবার হত্’যা মামলা নেওয়ার জন্য আদালতে ‘আবেদন ‘করেছেন। তবে ওই আবেদন নিয়ে মুনিয়ার বোন নুসরাত জাহান নিজের ভিন্ন অবস্থানের কথা জানান।আবেদনে মুনিয়ার ভাই আশিকুর রহমান হত্যা মামলার আসামি হিসেবে চট্টগ্রামের সরকার দলী’য় সাংসদ ও হুইপপুত্র সামশুল হক চৌধুরীর ‘ছেলে নাজমুল করিম চৌধুরী শারুনের নাম উল্লেখ করেছেন।

 

 

এটিকে মামলা ভিন্ন খাতে প্রবা’হিত করার’ ইঙ্গিত হিসেবে দেখছেন তার বোন নুসরাত জাহা’ন। তিনি’বলেন, প্ররোচনা মামলাটি ‘প্রায় প্রমাণিত হওয়ার পথে। আমার ভাই আশিকুর রহমান প্ররোচনার মামলাটিকে ভিন্ন খাতে নিতে নাজমুল করিমের বিরুদ্ধে মিথ্যা খুনের মামলার অভিযোগ এনেছেন। প্রকৃতপক্’ষে আশিকুর রহমান কিছুই জানেন না।’ উনি কখনও কোনও দায়িত্ব পালন ‘করেননি। মুনিয়ার’ অভিভাবক বলতে আমি আর আ’মার স্বামী। অভিভাবকের না’ম করে অসৎ উদ্দেশে হঠাৎ কেন তিনি (আশিকুর রহমান) এই মামলা করতে গেলেন তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন নুসরাত।

 

 

নুসরাত আরও দাবি করেন, আশিকুর রহমানের সঙ্গে ‘অনেক আগে থেকেই তাদের দুই বোনের সম্পর্কের অ’বনতি হয়েছে। তাদে’র একটি পারিবারিক মামলা আগে থেকে চলমা’ন। এটা এখন সবার জানা। এদিকে গুলশানের যে বাসায় থাকতেন মোসারাত জাহান মুনিয়া’ সেই ফ্ল্যাটটি কে ভাড়া নিয়ে’ছিলেন? কার তথ্য দেওয়া ছিল ভাড়াটিয়া ফর্মে? অনুসন্ধানে জা’না গেছে, গুলশান-২ নম্বরের ১২০ নম্বর সড়কের ওই ফ্ল্যাটটি ভাড়া নেওয়ার ভাড়াটিয়া ফর্মে তথ্য ছিল মুনিয়ার বড় বোন’ নুসরাত ও তার স্বামীর। তাদের দুজনের জা’তীয় পরিচয়পত্রের (এনআ’ডি) ফটোকপি ওই ফর্মের সঙ্গে গেঁথে দেওয়া হয়েছিল। আগাম ভাড়াও পরিশোধ করেছিলেন তারা।

মুনিয়ার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে কারা পাঠাত এতো টাকা

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here