কিভাবে আপনার নিজের সিম ডিএক্টিভ করবেন? sim deactivated problem bangla

0
131
sim deactivated problem bangla-01
sim deactivated problem bangla-01
বন্ধুরা মোবাইল ফোন ব্যবহার করে না এরকম লোক এখন নাই বললেই চলে,  আর থাকলেও সেটা খুবই সামান্য পরিমাণ। আপনি আমি সবাই মোবাইল ব্যবহার কর,,  আর প্রত্যেকটা মোবাইলেই আমরা সিম ব্যবহার করে থাকি, সেটা রবি হতে পারে এয়ারটে,, বাংলালিংক এরকম যে কোন একটি কোম্পানির সিম হতে পারে। এখন সমস্যা হল আপনার এনআইডি দিয়ে মোট কয়টি সিম তোলা হয়েছ।  আপনার নামে সিম তুলে কেউ ব্যবহার করছে সেটা জানেনই না এমনটাও কিন্তু হয়ে থাক।।
এজন্য প্রথমে জানতে হবে আপনার নামে মোট কয়টি সিম তোলা আছে এবং তার মধ্যে কয়টি সিম আপনি ব্যবহার করছেন। তাহলে আপনি বুঝতে পারবেন যে আপনার নামে অতিরিক্ত কোন সিম আছে কি না, যদি থেকে থাকে তাহলে আপনি সেটাকে ডিএকটিভ করে দিতে পারবেন খুব ইজি ভাবে আজকের এই পোস্টে আমরা এই বিষয় নিয়ে আলোচনা করব।
এজন্য আমাদের প্রথমে জানতে হবে যে আমাদের কয়টা সিম রেজিস্ট্রেশন করা আছে আপনার নিজের এনআইডি দিয়ে। এটা করা একদমই সহজ এজন্য আপনাকে চলে যেতে হবে সরাসরি ডায়াল প্যাডে। আপনার মোবাইলে ডায়াল কেটে যাওয়ার পর আপনাকে একটা কোড ডায়াল করতে হবে সেই কোডটি হচ্ছে স্টার *16001#
*16001# এই কোডটি ডায়াল করার পর আপনার সামনে একটা প্রপাব চলে আসবে সেখানে আপনার কাছে আপনার এনআইডি এর লাস্ট 4-digit চাইবে অর্থাৎ আপনার এনআইডি কার্ডের শেষ 4 ডিজিট এখানে লিখে দিবেন। লিখে দিয়ে সেন্ড করে দিবেন সেন্ড করার 10 থেকে 20 সেকেন্ডের মধ্যেই আপনার মোবাইলে একটি মেসেজ চলে আসবে।  আর সেই মেসেজ দেখতে পারবেন আপনার নামে কতগুলো সিম রেজিস্টার করা আছ। এভাবে আপনি জানতে পারবেন যে আপনার নামে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা আছে।like, and , but,  so, and, because
এখান থেকে আপনার প্রয়োজন নাই বা যেটি আপনি ব্যবহার করেন না বা এখানে যদি কোন একটি সিম অন্য কেউ ব্যবহার করে থাকে।  হারিয়ে গিয়েছে বাট সেটা এখন অন্য কেউ পেয়ে সেটা ব্যবহার করছে এরকমটা হয়ে থাকলে আপনি সেই সিমগুলো ডিএকটিভ করে দিতে পারেন খুব ইজিলি। কারণ আপনার নামের সিম অন্য কেউ ব্যবহার করলে সেটা কিন্তু আপনি যেকোন সময় বড় ধরনের হেসালে পড়তে পারে।এজন্য আপনি অবশ্যই এই বিষয়টা ছোট করে দেখবেন না, এ বিষয়টা একটু হ্যান্ডেল করবেন তাতে আপনার সিম আপনার নামের সিম অন্য কেউ ব্যবহার করতে না পারে। like, and , but,  so, and, because
সিম ডিএক্টিভ করার কয়েকটা প্রসেস আছে আমি জাস্ট যে প্রচেষ্টা একদম সহজ সেই প্রচেষ্টা আপনাকে বলছি আপনার জাস্ট ওয়ান টু ওয়ান এ ফোন করবেন। কাস্টমার কেয়ারে কাস্টমার কেয়ারে ফোন করার পর আপনারা কাস্টমার ম্যানেজারের সাথে কথা বলবেন এজন্য আপনাকে কাস্টমার ম্যানেজারের সাথে লাইন পেতে একটু সময় লাগে জাস্ট এইটুকু সময় ব্যয় করে আপনারা জাস্ট ওয়েট করে। কাস্টমার ম্যানেজারের সাথে কানেক্ট করুন কাস্টমার ম্যানেজারের সাথে কানেক্ট হওয়ার পর, আপনাকে বেশ কয়েকটা ইনফরমেশন চাই যদি ইনফরমেশন গুলো তাদের দেওয়া ইনফরমেশন গুলোর সাথে ম্যাচ করে তাহলে আপনি কিভাবে আপনার যে নাম্বারটি আছে বা যে নাম্বারটা ডিএকটিভ চাইছেন উনারা সেই নাম্বারটি দিয়ে ডিএকটিভ করে দিবে।like, and , but,  so, and, because
এখন আপনি গ্রামীণফোন, এয়ারটেল, রব, টেলিট,,  বাংলালিংক যে সিমের গ্রাহক হোন না কেন আপনি যদি আপনার সিমটি পার্মানেন্টলি ডিলিট করতে চান। অথবা পার্মানেন্টলি সিমটি ডিএকটিভ করতে চান তাহলে আপনাকে সরাসরি কাস্টমার কেয়ারে যেতে হবে এক্ষেত্রে আপনাকে শুধুমাত্র এনআইডি কার্ড আঙ্গুলের ছাপ প্রয়োজন হবে। এজন্য আপনাকে কোন প্রকার চার্জ দিতে হবে ন। । আপনাকে সশরীরে কাস্টমার কেয়ার এ যাওয়ার পর ভোটার আইডি কার্ড এবং আপনার আঙ্গুলের ছাপ দিয়। । আপনি আপনার সিমটি দিয়ে ডিএকটিভ করতে পারবেন আপনার ইচ্ছা করলে একই দিন একাধিক সিম ডিএক্টিভ বা ডিলিট করতে পারবে এতে কোন প্রবলেম হবে না।like, and , but,  so, and, because
because
আশা করি আপনাদেরকে যেকোনো সিম কিভাবে ডিএক্টিভ করবেন বা একদম পার্মানেন্টলি ডিলিট করবেন তার পুরো প্রচেষ্টা বলতে সক্ষম হয়েছে। যদি আপনার বুঝতে কোন সমস্যা হয় তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাতে পারেন। এতক্ষণ আমাদের সাথে থাকার জন্য আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।like, and , but,  so, and, because

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here