কমেন্ট দেখে ভাষাহীন হয়ে গেছেন বাইকার ফারহানা, মামলা করতে যাচ্ছেন আজই (ভিডিও)

0
1042
কমেন্ট দেখে ভাষাহীন হয়ে গেছেন বাইকার ফারহানা, মামলা করতে যাচ্ছেন আজই (ভিডিও)
কমেন্ট দেখে ভাষাহীন হয়ে গেছেন বাইকার ফারহানা, মামলা করতে যাচ্ছেন আজই (ভিডিও)
কমেন্ট দেখে ভাষাহীন হয়ে গেছেন বাইকার ফারহানা, মামলা করতে যাচ্ছেন আজই (ভিডিও)
গত ১৩ আগস্ট ছিল যশোরের মেয়ে ফারহানার গাঁয়ে হলুদের অনুষ্ঠান। আর এই অনুষ্ঠানের ছবি ও ভিডিও ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। তবে বিষয়টি সহজে নিতে পারেননি অনেকেই।
বিষয়টি নিয়ে আরটিভি নিউজের সঙ্গে ফারহানার কথা হয়। তিনি জানিয়েছেন তার বিয়ে হয়েছে ২০১৭ সালে। ব্যক্তিগত ও পারিবারিক বিভিন্ন কারণে বিয়ের অনুষ্ঠান দেরিতে হয়েছে। এর মধ্যে তার কোলজুড়ে এসেছে ছেলে সন্তান। এক মাস ১৩ দিন বয়স হয়েছে ছেলের। তবে সম্প্রতি ভাইরাল হওয়ায় মানসিক অশান্তিতে আছেন তিনি।
ফারহানার সঙ্গে কথোপকথন পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো-
আপনি কতদিন ধরে বাইক চালান, কী মডেলের বাইক চালান?
আমি ২০১৭ সালের শেষ দিক থেকে প্রফেশনালি বাইক চালাই। বর্তমানে বাইকে চড়ে ঢাকা শহরে যাতায়াত করি। তবে আমি বাইক চালানো শিখি ২০০৭ সালে। মডেলের বাইক বলতে আগে থেকে আমি ইয়ামাহা পছন্দ করি। আর বর্তমানে আমার ভাইয়ের বাইক চালাই।
যে আয়োজনটা ভাইরাল হলো, এটা কী উদ্দেশ্যে করা?
উদ্দেশ্য কিছুই ছিল না। আসলে ঢাকায় অহরহ দেখি বাইক নিয়ে ছেলেরা এন্ট্রি দেয়, আমার ইচ্ছে ছিল আমি এন্ট্রি দেবো। এজন্য পার্লার থেকে যাওয়ার পথে শুট করলাম যেটা সিনেমাটোগ্রাফি টাইপের কিছু একটা করার জন্যে। এটা যে ভাইরাল হবে বুঝিনি।
শ্বশুরবাড়িতে এটা ইতিবাচক নাকি নেতিবাচকভাবে দেখেছ?
না পজিটিভ বা নেগেটিভ কোনো ইমপ্যাক্ট পড়েনি। কারণ আমার শ্বশুরবাড়িতে তো আগে থেকেই জানতো যে আমি বাইক চালাই। কিন্ত মানুষের নানা ধরণের কথা নিয়ে নেগেটিভ ইমপ্যাক্ট পড়তে পারে। কারণ সবাই তো মানুষ। এটা হওয়া স্বাভাবিক।
আপনার বিয়ে হয় কত সালে?
২০১৭ সালে বিয়ে হয়েছে। তখন বউ উঠানো হয়নি কারণ বাবা মারা গিয়েছিলেন। পড়ালেখাসহ নানা কারণ ছিল। আমার একটা বেবি আছে। ১ মাস ২৩ দিন বয়স। ছেলে বেবি। নাম সাহাদ হাসান।
স্বামী সম্পর্কে বলুন
আমার স্বামী টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার। গাজীপুরে পোস্টিং। শ্বশুরবাড়ি পাবনাতে।
শুনলাম আপনার শ্বশুর আপনাকে বাইক গিফট করবেন?
এরকম কিছু না। আসলে ঢাকা শহরে যাতায়াতের কষ্ট, এজন্য শ্বশুর কথায় কথায় একদিন দিতে চেয়েছিলেন। আসলে এ নিয়ে নিউজ করার কিছু নাই।
আপনাকে যে নেতিবাচকভাবে অনেকেই উপস্থাপন করছেন, বিষয়টি নিয়ে কোনো পদক্ষেপ নেবেন?
আমি আজই থানায় মামলা করতে চাচ্ছি। অনেকে অনেক রকম মতামত দিচ্ছেন। আমি তো ভাইরাল হবার জন্য কিছু করিনি। শখ পূরণ করার জন্য করেছি। কী ধরণের কমেন্টস করেছে দেখলে বুঝবেন। আমি ভাষাহীন হয়ে গেছি। এজন্য অবশ্যই আমি মামলা করবই। আমার বাসায় ইতোমধ্যে থানার অফিসার গেছেন, কথাবার্তা চলছে।
সোশ্যাল মিডিয়া ইউজারদের উদ্দেশে কিছু বলুন?
একটা নতুন জিনিস নেগেটিভ, পজেটিভভাবে সবাই নেবেন। তবে আমি বলবো কে কোন বংশের এটা প্রকাশ করার দরকার নাই। যারা আমাকে বিরূপভাবে উপস্থাপন করছেন, তাদের মানসম্মান আসলে কোথায় গিয়ে ঠেকছে সেটা ভেবে দেখবেন। অনুরোধ করব- অন্য একজনকে নষ্ট করতে গিয়ে নিজে নষ্ট হবেন না।
সবাইকে বলব মিথ্যা নিউজ ছড়াবেন না কেউ। নিউজ দেখলাম, আমি নাকি বাইক নিয়ে বরের বাসায় আসছি। এটা কোনো ধরণের নিউজ। কখনও এমন তো হয়নি।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here