ধ’র্ষনে অন্তঃ-সত্ত্বা কিশোরী, নতুন সন্তা’নের বাবা কে? কথিত স্বামীর অস্বী’কার,

0
409
নতুন সন্তানের বাবা কে
ধ’র্ষনে অন্তঃ-সত্ত্বা কিশোরী, নতুন সন্তা’নের বাবা কে? কথিত স্বামীর অস্বী’কার,সিরাজ’গঞ্জের তাড়াশ উপজেলার বারুহা’স ইউনিয়নের সান্দ্রা গ্রামের এক দরিদ্র পরিবারে’র মেয়ে ১৪ বছর বয়সের কি’শোরী রাজিয়া। এ বয়সেই সে নয় ‘মাসের অন্তঃসত্ত্বা। তবে এখানে প্রশ্ন উঠছে গর্ভবতী এই ‘কিশোরীর সন্তানের বাবা কে? স্বীকার করছে না ওই মেয়েটির কথিত স্বামী।
প্রতারণা, অনাগত সন্তানের ভবিষ্যৎ ও পিতৃপরিচয় কি হবে এ নিয়ে ‘উদ্বিগ্ন কিশোরী। তার দরিদ্র’ পরিবার অনেকটাই দি’শেহারা।জানা ‘যায়, এক দরিদ্র পরিবারের মেয়ে’ ও বারুহাস মহিলা মাদ্রাসার ছাত্রী ভুক্তভো’গী কিশোরী। তার বয়স’সবে ১৪। একই গ্রামের ফোরকান আলীর ছেলে ও দিঘরিয়া মাদ্রাসার ছাত্র জুবায়ের আহমেদের (১৭) সাথে প্রে’মের সম্পর্ক গড়ে ওঠে তার।
প্রাপ্তবয়স্ক ‘না হওয়ায় গোপনে ইসলামী শরীয়াহ মোতাবেক’ কলেমা পড়ে বিয়ে করে। মেয়ের দাবি, অ’প্রাপ্ত বয়স হওয়ায় তারা ‘কাবিন তথা বিয়ে রেজিস্ট্রি করতে পা’রেনি। পরিবারের কাউ’কে না জানিয়ে গোপনে বিয়ে করার পর দৈহিক মেলামেশায় রাজিয়ার গর্ভে সন্তান আসলে উভয় পরিবারে’ বিষয়টি জানাজানি হয়। ঘটনাটি প্র’কাশ হলে জুবায়ের আহমেদের বাবা ফোরকান আলী
‘বিষয়টি ধামাচাপ দেওয়ার চেষ্টা করেন।কা’বিন না থাকায় তারা সন্তান নষ্ট করার জন্য’ বার বার চাপ দিলেও কিশো’রী তাতে রাজি হয়নি। জুবায়েরের পরিবার প্রভাবশালী হওয়ায় নিরুপায় হতদরিদ্র রাজিয়ার বাবা সমাজে বিচার না পেয়ে আদালতে মামলা দায়ের করেন’।
মামলা নং -জি আর ৮৯’/২০ তাং ২৮-০৭-২০২’০ ইং। মামলার পর আসামি’রা গ্রেপ্তার না হও’য়ায় হতাশায় ভুগ’ছে কিশোরীর পরি’বার।অপরদি’কে কিশোরীকে ‘অসতী ’ আ’খ্যা দিয়ে জুবায়েরের পরিবারের প্রভাবে গ্রামের মাতব্বররা ‘তাদের একঘরে করে রেখেছে। তাদেরকে সামাজিক কোনো অনুষ্ঠানে অংশ নিতে দেয়া হচ্ছে না, এমনকি কোর’বানীর মাংসও তাদের দেয়া হয়নি এমন অভিয়ো’গ পাওয়া গেছে।
যার ফলে দুর্বিষহ’ জীবনযাপন করছেন তারা। বর্তমানে নয় ‘মাসের সন্তান গর্ভে নি’ কিশোরী দুশ্চি’ন্তায় অবরুদ্ধ জী’বনযাপন’ করছে।সাংবাদিকদের রাজিয়া জানায়, আমার গর্ভে সন্তানের জন্য আমি আত্মহত্যাও করতে পারছি না, তা না হলে এতদিন কবে আত্মহত্যা করতাম।এদিকে অভিযুক্ত জুবায়ের আহম্মেদ পলাতক থাকায় অনেক চেষ্টার পরও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।
তবে তার বাবা ফোরকান আলী মুঠোফোনে বলেন, যে মামলা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। ষড়যন্ত্রমূলকভাবে ফাঁসানোর জন্য আমাদেরকে জড়ানো হয়েছে। তিনি বলেন, কোর্টে মামলা হয়েছে।
কোর্টেই মোকাবেলা করবো।এ প্রসঙ্গে বারুহাস ইউপি চেয়ারম্যান মোক্তার হোসেন মুক্তা বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে আমি সবেমাত্র জেনেছি। তবে ঘটনাটি ন্যাক্কারজক বটে।
আমি চাই অপরাধীকে আইনের আওতায় এনে বিচার করা হোক।এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী অফিসার তাড়াশ থানার এসআই ফরিদ হোসেন বলেন, মামলার তদন্ত চলছে। আসামি গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।
আরও ৩ দিনের ‘রিমা’ন্ডে – ওসি প্রদীপসহ ৩ আসা’মি
কক্সবা’জারের টেকনাফে সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মা’মলায় পুলিশের বরখাস্’ত হওয়া ওসি প্রদীপ, ইন্সপেক্টর লিয়াকত ও এসআই নন্দদুলালকে আবা’রও ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।
শুক্রবার বিকালে কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না ফারাহ প্রত্যেককে ফের ৩ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কোর্ট ইন্সপেক্টর প্রদীপ।
কোর্ট ই’ন্সপেক্টর জানান, শুক্রবার দুপুরে তাদের আদালতে হাজির করা হয়। সেখানে তা’দেরকে আবারও রিমান্ডের আবেদন করেন র‌্যাব ‘তদন্ত কর্মকর্তা।
এ সময় ওসি’ প্রদীপের আইনজীবী আহসা’ল হক রিমান্ড না মঞ্জুর করে ওসি প্রদীপের জামিন আ’বেদন করেন। আদা’লত শুনানি শেষে তাদেরে প্রত্যেককে আবারও তিন দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
এর আগে, ‘প্রথম দফায় সাতদিন ও দ্বিতীয় দফায় চারদিনের রিমান্ডে ‘নেয়া হয় সিনহা হত্যার অভিযুক্ত তি’ন আসামিকে। গতকাল বৃহস্’পতিবার তিন আ’সামিকে আদালতে হাজির করার’ কথা থাকলেও তা করা হয়নি।
প্রসঙ্গত’, গত ৩১ জুলাই রাত সাড়ে ১০টার দিকে কক্সবাজা’-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভের বাহারছড়া ইউনিয়’নের শামলাপুর চে’কপোস্টে পুলিশের গু’লিতে নিহত হন অ’বসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা ‘মোহাম্মদ রাশেদ খান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here