যেভাবে সালমান শাহ হয়েছিলেন ইমন, জানালেন সামিরা

0
334
যেভাবে সালমান শাহ হয়েছিলেন ইমন, জানালেন সামিরা
যেভাবে সালমান শাহ হয়েছিলেন ইমন, জানালেন সামিরা

মৃত্যুর ২৪ বছর পেরিয়ে গেলেও এখন সিনেপ্রেমীদের হৃদয়ে আবেদন তোলেন সালমান শাহ।অনেকের মতে, ঢাকাই ছবিতে সালমান শাহের মতো জনপ্রিয় নায়ক হয়তো আর কখনই জন্মাবে না।সালমানের অকাল মৃত্যুর পর রিয়াজ, শাকিল খানসহ অনেকেই এসেছেন রুপালি জগতে।কিন্তু তারা কেউই সালমানের অভাব পূরণ করতে পারেননি বলে স্বীকার করে নিয়েছেন অভিনেতা রিয়াজ।

সালমান শাহ নামটির জনপ্রিয়তা ঢাকাই ছবিতে আকাশচুম্বী হলেও মূলত এটি এই প্রয়াত চিত্রনায়কের নাম নয়।তার নাম শাহরিয়ার চৌধুরী ইমন, যা হয়তো এ প্রজন্মের অনেকের অজানা।কীভাবে ইমন সফল নায়ক সালমান শাহে পরিণত হলেন, সে গল্প জানতে চান অনেকেই।সালমানভক্তদের সেই গল্পটা জানালেন তার স্ত্রী সামিরা।

সম্প্রতি এক গণমাধ্যমকে সামিরা বলেন, ‘৯২ সালের ২০ ডিসেম্বর ইমনের (সালমান শাহ) সঙ্গে আমার বিয়ে হয়। সে বছরের জুলাইয়ে ইমন এসে আমাকে জানায়, সিনেমার প্রস্তাব এসেছে। পরিচালক নামটা বদলাতে বলেছেন। বিষয়টি ঢাকাই ছবিতে বেশ গুরুত্বপূর্ণ। ওই নাম দর্শকদের মনে গেঁথে গেলে সিনেমা হিট। অনেক নায়ক-নায়িকাই পারিবারিক নামের বাইরে গিয়ে অন্য নামে পরিচিতি পেয়েছেন। শাহরিয়ার চৌধুরী ইমন এমন নাম সিনেমার জন্য নয়। তাই নতুন নাম রাখতে হবে।

সামিরা বলেন, এ ধরনের নাম সাধারণত পরিচালক-প্রযোজকরাই দিয়ে থাকেন। প্রায় সবার নামই এসেছে এভাবে। কিন্তু ইমন আমাকে গুরুত্ব দিয়েছিল। আমার কাছে ছুটে এসেছিল সে। স্ত্রীর দেয়া নামেই সিনেমায় পরিচিত হতে চেয়েছিল সে। তখন বলিউডে সালমান খান খুব জনপ্রিয়। নতুন আসা এই নায়কের ছবি মানে সুপারহিট। আমারও প্রিয় ছিলেন তিনি। তাই সিদ্ধান্ত নিই ইমনের নাম সালমান রাখার। সেই নাম থেকেই নেয়া হলো সালমান। সালমান ঠিক করার পর আমি বললাম, নিজের নামেরও কিছুটা অংশ থাকা উচিত। তাই শাহরিয়ারের ‘শাহ’ নামের শেষে রাখতে বললাম। এমন নামে সে খুবই খুশি হলো। এভাবেই ইমন থেকে সালমান শাহের সৃষ্টি। আমার আশা ছিল নামটি সহজেই দর্শকের হৃদয়ে স্থান পাবে। আর সেটিই সঠিক হলো। ‘৯৩ সালের ১০ মার্চে মুক্তি পায় সোহানুর রহমান সোহান পরিচালিত ইমন ওরফে সালমান শাহের ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ ছবিটি। প্রথম ছবি দিয়েই ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন নায়ক সালমান শাহ।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here